আগৈলঝাড়ায় স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে বিষপান করানোর অভিযোগ : লাশ রেখে পালিয়েছে স্বামী :

প্রকাশকাল- ০৯:৩৪,আগস্ট ৯, ২০১৭,বরিশাল বিভাগ বিভাগে

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে :
বরিশালের আগৈলঝাড়ায় স্ত্রীকে হত্যার উদ্দেশ্যে বিষ খাইয়ে এক গ্রাম্য চিকিৎসকের কাছে ফেলে রেখে পালিয়েছে স্বামী। ওই গ্রাম্য চিকিৎসকের মাধ্যমে তিনদিন চিকিৎসার পর ওই গৃহ্বধূর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। মৃত গৃহবধূর বাবা ও স্থানীয়সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের জয়রামপট্টি গ্রামের সুধীর দাসের মেয়ে মৌসুমীর রতœপুর ইউনিয়নের বারপাইকা গ্রামের নরেন হালদারের ছেলে নরোত্তম হালদারের সাথে বিয়ে হয়। দাম্পত্য জীবনে তাদের এগারো মাসের একটি সন্তান রয়েছে। পারিবারিক কহলের কারণে নরোত্তম গত ৪ আগস্ট শুক্রবার দুপুরে স্ত্রী মৌসুমীকে মারধর করে তার মুখে বিষ ঢেলে হত্যার চেষ্টা করে। এতে মৌসুমী জ্ঞান হারালে স্বামী নরোত্তম তাকে স্থানীয় বারপাইকা বাজারের গ্রাম্য চিকিৎসক কৃষ্ণকান্ত রায়ের দোকানে রেখে পালিয়ে যায়। গ্রাম্য চিকিৎসক কৃষ্ণকান্ত মৌসুমীকে তিনদিন চিকিৎসা প্রদান করেন। ওই চিকিৎসায় মৌসুমীর অবস্থার কোন উন্নতি না হওয়ায় তিনদিন পর রোববার গুরুতর অবস্থায় মৌসুমীকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। গাড়িতে লাশ বাড়ি পাঠিয়ে ঘটনার পর থেকে স্বামী পলাতক রয়েছে।