আগৈলঝাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক্স-রে মেশিন ব্যবহার অনুপযোগী : নেপথ্যে কমিশন বানিজ্যের কারণে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা

প্রকাশকাল- ০৭:৫৪,অক্টোবর ১০, ২০১৭,বরিশাল বিভাগ বিভাগে

Agailjhara Photo- 10-10-17 (1)অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে :
বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন ধরে এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে পরে রয়েছে। এতে হাসপাতালে রোগীরা চিকিৎসা সেবা থেকে রয়েছে বঞ্চিত। বাধ্য হয়ে রোগীর লোকজন বাইরে থেকে অধিক খরচে এক্স-রে করাচ্ছেন। মেশিনটি সারাতে কর্তৃপক্ষের উদাসীনতার পেছনে রয়েছে ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কমিশন প্রাপ্তি। ফলে তারা উদ্যোগী হয়ে মেশিনটি সারাচ্ছেন না বলে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত জুন মাস থেকে এক্স-রে মেশিনটি নষ্ট হয়ে পড়ে থাকায় গত আগস্ট মাসে সেটি মেরামতের উদ্যোগ নেয়া হলেও এখন পর্যন্ত তা করা হয়নি। সরকার রোগীদের স্বল্পখরচে এক্স-রে করার জন্য সরকারীভাবে হাসপাতালটিতে ৩০০ এমএম অত্যাধুনিক ডিজিটাল এক্স-রে মেশিন প্রদান করে। নতুন মেশিন স্থাপনের পরপরই কয়েক দফায় তা নষ্ট হয়ে পরে। ফলে বাধ্য হয়ে রোগীরা বাইরের নামসর্বস্ব ডায়গনস্টিক সেন্টার থেকে বেশী টাকায় এক্স-রে করাতে হচ্ছে। সেখান থেকে চিকিৎসক ও সংশ্লিষ্টরা নিয়মিত কমিশন পেয়ে থাকেন। তাই তারা মেশিনটি সারাতে উদ্যোগী হচ্ছেন না
হাসপাতালের টেকনিশিয়ান পরিমল মন্ডল বলেন, মেশিন কখন নষ্ট হবে তা কেউ বলতে পারেনা। তবে এক্স-রে মেশিনটির কারিগরী ত্রুটির জন্য ঢাকা থেকে ইলেক্ট্রো মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ার হাসপাতালের লোক আসার কথা রয়েছে।
এব্যাপারে হাসপাতালের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আলতাফ হোসেন জানান, এক্স-রে মেশিনটি অতিদ্রুত সংস্কারের ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক রোগীদের সেবা প্রদান করা হবে।