কারিনা-শিল্পাদের বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আনার চেষ্টা

প্রকাশকাল- ১০:৩৩,আগস্ট ৮, ২০১৭,খেলা বিভাগে

bplদেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও সময়ের অভাবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) গত আসরে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করতে পারেনি টুর্নামেন্টটির গভর্নিং কাউন্সিল। তবে পঞ্চম আসরে জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠান করেই সে আক্ষেপ ঘোচাতে চাইছে তারা। আর তাই বরাবরের মতো ভারতের প্রতিষ্ঠিত তারকাদের সঙ্গে আলোচনাও চলছে। এর মধ্যেই বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে থাকবেন নিশ্চিত করেছেন ভারতের অন্যতম সেরা গায়ক অরিজিত সিং। এছাড়াও বলিউড সুপারস্টার কারিনা কাপুর, শিল্পা শেঠিদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পারফর্ম করার জন্য পাওয়ার চেষ্টা চলছে। শুধু বিদেশি তারকাই নয় দেশের বড় বড় তারকারাও জমাবেন বিপিএলের মঞ্চ।

আগামী ২ নভেম্বর মাঠে গড়াচ্ছে বিপিএলের এবারের আসর। তবে এর আগে ৩১ অক্টোবর হবে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। আর এ অনুষ্ঠানের আয়োজন নিয়ে সোমবার বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্য শেখ সোহেল বললেন, ‘বাংলাদেশ ও ভারতের শিল্পীদের নিয়ে এবার আমরা বড় করে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করতে চাই। বাংলাদেশ থেকে যেমন রুনা লায়লা আপা, সাবিনা ইয়াসমিন আপা ও মমতাজ আপার সাথে আমরা কথা বলবো। ভারত থেকে ইতোমধ্যেই অরিজিতের সঙ্গে আলোচনা চুড়ান্ত হয়ে গেছে। ক্যাটরিনা কাইফ, কারিনা কাপুর ও শিল্পা শেঠির সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করছি। যেহেতু তারা বলিউড তারকা, তাই এদের অনেক ব্যস্ত সুচি থাকে। এদের শিডিউল পাওয়াটা আমাদের জন্য খুবই কঠিন।’

চেষ্টা চালালেও শিডিউল সমস্যায় ক্যাটরিনাকে পাচ্ছে না বিপিএল। এছাড়াও কারিনার আসার ব্যপারটিও ঝুলে আছে। তবে কয়েকদিনের মধ্যেই কারিনার ব্যপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানতে পারবেন তারা। শেষ মুহূর্তে কারিনাকে না পেলে শিল্পাকে নিয়ে অনুষ্ঠান করার ইচ্ছার কথা জানান সোহেল, ‘আমাদের যে ডেট এই ডেটে ক্যাটরিনা কাইফ ও কারিনা কাপুরের শিডিউলে কিছুটা সমস্যা আছে। আমি গতকাল রাত দেড়টা পর্যন্ত কারিনা কাপুরের ব্যক্তিগত সহকারীর সাথে কথা বলেছি। ও আমাকে বলেছে আমি তোমাকে দুই দিনের মধ্যে জানাবো যে আমরা এই তারিখে পারবো কি না। দুই একদিনের মধ্যে কারিনা কাপুরের বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারবো। ক্যাটরিনাকে আমরা পাচ্ছি না। আর কারিনাকে না পেলে তার বিকল্প শিল্পা শেঠি। কারিনা না বললে অরিজিত ও শিল্পাকে নিয়ে বাইরের প্রসঙ্গটা করতে চাই।’

এছাড়াও প্রতিবারের মতো এবারও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে নতুনত্ব উপহার দেওয়ার কথা জানান সোহেল। একটি চাইনিজ সার্কাস কোম্পনির সাথে আলোচনা চলছে তাদের। এছাড়াও গানবাজনার লেজার শোও থাকতে পারে বলে জানান তিনি।  ভারতের একটি ড্যান্স গ্রুপের ৩০ মিনিটের একটা ড্যান্স শো আয়োজন হতে পারে বলেও জানান সোহেল।

উল্লেখ্য, বিপিএলের আগের আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে ছিল নানা অভিযোগ। সাধারণ দর্শকদের জন্য টিকেট ছিল সোনার হরিণ। এছাড়াও নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েও ছিল অনিয়মের অভিযোগ। এবার সে সমস্যা থেকে উত্তরণের জন্য শুরু থেকেই কঠিন পদক্ষেপ নেবে বলে জানিয়েছে গভর্নিং কাউন্সিল।