গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে এক গৃহবধুর মৃত্যু

প্রকাশকাল- ২২:০৮,ডিসেম্বর ১৩, ২০১৭,রাজশাহী বিভাগ বিভাগে

সোহেল রানা ঃ

জানা গেছে মিমি খাতুন (১৮) নামে এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। মিমি সাঁথিয়া থানার খেতুপাড়া ইউনিয়নের বহলবাড়িয়া গ্রামের মো. আব্দুল মালেকের কন্যা। ২ বছর আগে একই ইউনিয়নে ফৈজর গ্রামে আব্দুল মোমিন নামে এক ছেলের সাথে তার বিয়ে হয়। বর্তমানে মোমিন দেশে বাইরে আছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায় সকাল ১০টায় যখন মিমের বাবা ও মা তার ছোট ভাইয়ের চিকিৎসার জন্য পাবনায় চলে আসে তখন পুরো বাড়ি ফাকা ছিল। বাড়িতে কোন লোক না থাকায় বাড়ির গেট আটকিয়ে মিমি আতœ হত্যার জন্য গ্যাস ট্যাবলেট খায়। গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়ার পরপরই মিম চিৎকার করে বলতে থাকে মরে গেলাম মরে গেলাম এ সময় পাশের বাড়ি চাচাত বোন চিৎকার শুনে ছুটে যায়। বাড়ীর মেইন গেট বন্ধ দেখে লোকজনকে খবর দেয় এবং লোকজন এসে গেট ভেঙ্গে মিমকে দেখতে পায় সে মেঝেতে গড়াগড়ি পারছে। আশপাশের লোকজন মিমকে দ্রুত পাবনা জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসে। বেলা ১টার সময় গ্যাসের ট্যাবলেটের বিষক্রিয়ায় মিমের মৃত্যু হয়। হাসপাতাল কতৃপক্ষ মিমের মরদেহ পাবনা সদর থানার কাছে হস্তান্তর করে। মৃত্যুর বিষয়টির ঘটনাটি পাবনা সদর থানার তদন্ত অফিসার জালাল উদ্দিন নিশ্চিত করেছেন। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পাবনা সদর থানায় লাশের সুরতহালের প্রস্তুতি চলছে।