ছাতকে প্রবাসি ভাই-বোনকে বাদ দিয়ে পৈত্রিক সম্পত্তির উত্তরাধিকার সনদ

প্রকাশকাল- ২১:০৩,অক্টোবর ১১, ২০১৭,সিলেট বিভাগ বিভাগে

চান মিয়া, ছাতক (সুনামগঞ্জ)::

ছাতকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করতে প্রবাসি ভাই-বোনের নাম বাদ দিয়ে উত্তরাধিকার সনদ নিয়ে বিপাকে পড়েছেন সুনু মিয়া নামের এক ব্যবসায়ি। তিনি প্রতারনার মাধ্যমে উত্তরাধিকার সনদ নিয়ে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে তাদেরকে বঞ্চিত করার অপচেষ্ঠা চালান। উপজেলার ছৈলা-আফজালাবাদ ইউপির বাগইন গ্রামের মৃত সুলতান মিয়ার ৬সন্তানের মধ্যে ৪জনের নামে ইউপি অফিস থেকে উত্তরাধিকার সনদ নিয়ে ১৭একর ৫৬শতক ভূমির বাটোয়ারা দলিল (নং-৩২৬২/২০১৭) সম্পাদন করা হয়। সুনু মিয়ার ৩ভাই ও ৩বোনের মধ্যে সেলিম আহমদ, আজাদ মিয়া, নুর জাহান বেগম ও লিপি বেগম দীর্ঘদিন থেকে যুক্তরাজ্যে বসবাস করছেন। পৈতৃক সম্পদ থেকে প্রবাসি দু’ভাই-বোনকে বঞ্চিত করতে সুনু মিয়া প্রতারণামূলক জাল সনদ গ্রহন করেছেন বলে জানা গেছে। তার বোন আফিয়া বেগম বিবাহ সুত্রে দক্ষিন খুরমা ইউপির চৌকা গ্রামে ও সুনু মিয়া বাড়িতে পৈত্রিক সহায়-সম্পদ দেখা-শোনাও ভোগ-দখল করে আসছেন। সম্প্রতি ১৭একর ভূমির মধ্যে কথিত বাটোয়ারা দলিলে প্রবাসি ভাই সেলিম আহমদ ও বোন লিপি বেগমকে পৈত্রিক সম্পত্তি থেকে বঞ্চিত করে ১০একর ৬৮শতক ভূমি একাই সুনু মিয়ার নামে লিখে নিয়েছেন। এরমধ্যে ৬একর ৯২শতক ভূমির মালিক আজাদ মিয়া, আফিয়া বেগম ও নূরজাহান বেগমকে দেখানো হয়েছে। ১০সেপ্টেম্বর প্রবাসি দু’জনকে বাদ দিয়ে ৪জনের নামে ইউনিয়ন পরিষদ থেকে একটি উত্তরাধিকার সনদ নেয়া হয়। এখন প্রবাসী সেলিমও লিপি বেগম দূতাবাসের মাধ্যমে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলে জানা গেছে। ইউপি চেয়ারম্যান গয়াছ আহমদ জানান, ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার মিলন ধরের সুপারিশে উত্তরাধিকার সনদ প্রদান করা হয়। পরে জানা গেছে সুলতান মিয়ার আরো এক পুত্র ও কন্যা যুক্তরাজ্যে রয়েছেন। বিষয়টি জেনে সুনু মিয়াকে ডেকে আপোষে নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানান ইউপি চেয়ারম্যান। তবে জালিয়াতি মূলক উত্তরাধিকার সনদে একটি মহল মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বলে জানা গেছে।