জনগনের বিপদ দেখলে শেখ হাসিনার অনুসারীরা পালায় না,পাশে থাকে’

প্রকাশকাল- ১৯:৪৬,আগস্ট ২১, ২০১৭,চলনবিলের সংবাদ বিভাগে

pic-2শেখ হাসিনা সরকার জনগনের পাশে আছেন,থাকবেন। তিনি চলনবিলের মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দিয়েছেন
আরো দিবেন, একটা মানুষ ও না খেয়ে থাকবে না। সিংড়ার বন্যার্তদের পাশে আমি আছি, থাকবো। বন্যার পর ঘড়বাড়ি মেরামত করে দেয়া হবে। পূনর্বাসন না হওয়া পর্যন্ত সেবা দিয়ে যাবে। আওয়ামীলীগ সরকার জনগনের বিপদে পাশে থাকে।’

স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যায় আমার প্রিয় সিংড়াবাসী মারাত্নকভাবে ক্ষয়-ক্ষতির শিকার হয়েছেন।
বিপদসীমার ৯৪ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে আত্রাই নদীতে পানি প্রবাহিত হচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বন্যার্ত এসব মানুষের পাশে থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতার মাধ্যমে কষ্ট লাগব করার প্রচেষ্টা হিসেবে সরকারি-বেসরকারি নানাবিধ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বন্যায় ঘর-বাড়ি ভেসে যাওয়া মানুষদের জন্য ইতোমধ্যে ১৪টি অস্থায়ী বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এসব কেন্দ্রে ১৯০৬ জন মানুষ আশ্রয় নিয়েছে এবং এসকল আশ্রয় গ্রহীতাদেরকে রান্না করা খাবারসহ প্রয়োজনীয় চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। পাশাপাশি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে ত্রাণের চাল, শুকনো খাবার, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট ও খাবার স্যালাইন বিতরণ করা হচ্ছে।
এ পর্যন্ত ৭০ মেট্রিক টন চাল এবং শুকনো খাবার ক্রয় ও আনুষঙ্গিক ব্যয় বাবদ ৫ লক্ষ টাকার সরকারি সহযোগিতা প্রদান করা হয়েছে।
সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে নতুন করে ১০০ মেট্টিক টন চাল,৫ লাখ টাকা ও আশ্রয় কেন্দ্রের মানুষদের খাওয়ানোর জন্য ২০ লাখ টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে।

শেখ হাসিনার সরকার বন্যার্ত সকল মানুষের সহযোগি হিসেবে দুর্ভোগ লাগবে কাজ করে যাচ্ছে।