পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর বরিশাল-গোপালগঞ্জ-খুলনা মহাসড়কের আগৈলঝাড়া অংশে পুনরায় সংস্কার কাজ শুরু করেছে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান

প্রকাশকাল- ২০:১১,অক্টোবর ১৬, ২০১৭,বরিশাল বিভাগ, স্লাইডশো বিভাগে

অপূর্ব লাল সরকার, আগৈলঝাড়া (বরিশাল) থেকে :

Agailjhara Photo- 16-10-17 (2)

বরিশাল-গোপালগঞ্জ-খুলনা মহাসড়কের আগৈলঝাড়া অংশের ১১ কিলোমিটার সড়ক সংস্কারে ব্যাপক অনিয়মের সংবাদ বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশের পর টনক নড়ে বরিশাল সওজ বিভাগের। পুনরায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান সংস্কার কাজ শুরু করেছে।
সওজ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বরিশাল-খুলনা মহাসড়কের আগৈলঝাড়া বাইপাস থেকে পয়সারহাট বরিশাল পর্যন্ত অংশের ১১ কিলোমিটার সড়কে গর্ত সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়ে। ফলে সড়কটিতে বাস-ট্রাকসহ অন্যান্য যানবাহন চালকদের ভোগান্তিসহ অহরহ দূর্ঘটনা ঘটছে। এ কারণে বরিশাল সওজ বিভাগ ২০১৬-২০১৭ইং অর্থবছরে রক্ষণাবেক্ষণ প্রকল্পের অধীনে সড়কের ১১ কিলোমিটার সংস্কারের জন্য ১ কোটি ৪ লক্ষ টাকার টেন্ডার আহবাণ করা হয়। সেরনিয়াবাত এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স সান্টু ট্রেডার্স নামে দু’টি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান নামেমাত্র সংস্কার কাজ করে শেষ করে। ওই কাজের তদারকির দায়িত্বে ছিলেন বরিশাল সওজ বিভাগের উপ-সহকারী প্রকৌশলী হানিফ মিয়া। তার সহযোগিতার ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দু’টি সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়ম করেছে। সংস্কার কাজ তিন মাস যেতে না যেতেই পুনরায় সড়কটির বিভিন্নস্থানে খানাখন্দ ও গর্তের সৃষ্টি হয়। এ সংক্রান্ত অনিয়মের একটি সংবাদ কয়েকদিন ধরে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত হলে বরিশাল সওজ বিভাগের টনক নড়ে। সংবাদ প্রকাশের পর প্রভাবশালী ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান দু’টিকে সওজ বিভাগ ডেকে পুনরায় সংস্কার কাজ সম্পন্ন করে দেয়ার নির্দেশ দেয়। ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান গত রোববার থেকে পুনরায় সংস্কার কাজ শুরু করেছে। সোমবার সকালে সরেজমিনে গৌরনদী-আগৈলঝাড়া-পয়সারহাট মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে সংস্কার কাজ করতে দেখা গেছে।
এব্যাপারে বরিশাল সওজ উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী দুলাল চন্দ্র প্রামানিক বলেন, সংস্কার কাজের পরে বৃষ্টি হওয়ায় বিভিন্নস্থানে গর্ত হওয়া পুনরায় ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজ শুরু করেছে।