ফরিদপুরে সংসদ সদস্যের হাত থেকে শিক্ষাবৃত্তি পেয়ে শিক্ষার্থীদের বেড়েছে আত্মবিশ্বাস

প্রকাশকাল- ০৮:৩৩,অক্টোবর ২০, ২০১৭,চলনবিলের সংবাদ বিভাগে

Bhangoora (pabna) photo19.10.2017

নিজস্ব প্রতিনিধি ঃ
আমরা ক্ষুদে শিক্ষার্থী। তার ওপর আবার প্রত্যন্ত পাঁড়া-গায়ে বাস করা দরিদ্র বাবা-মায়ের সন্তান। এমপি আলহাজ্ব মকবুল হোসেন কিংবা বিশিষ্ট কোন ব্যক্তির কাছ থেকে পুরস্কার পাওয়ার সৌভাগ্য এর আগে কোন দিনই হয়নি।  সবসময়ই আমাদের এমপি আলহাজ্ব মকবুল হোসেনের বিভিন্ন গুণের কথা গ্রামের বড় বড় মানুষদের কাছে শুনেছি। কোনদিনই ভাবিনি যে এরকম একটি অনুষ্ঠানে উনার এতো সামনে বসে থেকে এতো মূল্যবান কথা শুনব এবং উনার হাত থেকে সরাসরি শিক্ষাবৃত্তি নেব । বৃহস্পতিবার বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে সে সৌভাগ্যটুকু আমার পুরণ হলো। অনুষ্ঠানে মাননীয় সংসদ সদস্যের হাত থেকে শিক্ষাবৃত্তি পাওয়া এবং আমাদের প্রতি যে দিক নির্দেশনামূলক কথাগুলো বলেছেন, তা আমাকে অনেক আত্মবিশ্বাসী ও পড়ালেখায় আরো আগ্রহী করে তুলেছে। এজন্য আমি মাননীয় সংসদ সদস্যের কাছে কৃতজ্ঞ। মাননীয় সংসদ সদস্যের হাত থেকে শিক্ষাবৃত্তি পাওয়ার সময় আমার মনটা আনন্দে ভরে উঠছিল। এর পূর্বেও বিভিন্ন প্রকার বৃত্তি পেয়েছি। কিন্তু সেসময় অনুভূতি এমন ছিলনা। এবার যেন পাওয়ার আনন্দটা অন্যরকম ছিল। এছাড়া অনুষ্ঠানে আমাদের মত শিক্ষার্থীদের প্রতি সম্মানিত উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমান সরকার ও সুযাগ্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তোফায়েল হোসেন স্যারের যে স্নেহ ও সহমর্মিতা লক্ষ্য করেছি, তা আমাকে অত্যন্ত মুগ্ধ করেছে। বৃহস্পতিবার পাবনার ফরিদপুরে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে মেধাবী ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠান শেষে এভাবেই মনের কথাগুলো ব্যক্ত করলেন উপজেলার প্রত্যন্ত পুংগলী ইউনিয়নের আমিনা নবাবজান দাখিল মাদরাসার দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী যোবায়ের হোসেন। উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আযোজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পাবনা-৩ এলাকার সংসদ সদস্য ও কৃষি মন্ত্রণালয়ের স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ মকবুল হোসেন ১০০ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে এ বৃত্তি প্রদান করেন। উপজেলা চেয়ারম্যান খলিলুর রহমার সরকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তোফায়েল হোসেন, ভাইচ চেয়ারম্যান সাফিনুর রহমান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আমিনুল ইসলাম মুরাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উপজেলা সমবায় অফিসার মাসুদ রানা ও যুবলীগ নেতা হাফিজুর রহমান। অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি ১০০ জন মেধাবী ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীর প্রত্যেককে চার হাজার টাকা তুলে দেন।