বিরাট কোহলি সুনামিতে ভেসে গেল ‘লঙ্কা’

প্রকাশকাল- ২১:৩০,জুলাই ২৯, ২০১৭,খেলা বিভাগে

বিরাট কোহলক্রীড়া: ‘লঙ্কা জয়’ ভারতের৷গল টেস্টে ৩০৪ রানে জয় বিরাটবাহিনীর৷শ্রীলঙ্কার মাটিতে সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয় টিম ইন্ডিয়ার৷ মাত্র চার দিনেই টেস্ট খতম করে দিল কোহলি অ্যান্ড কোং৷

চতুর্থ দিন সকালে ৫৪৯ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ডিক্লেয়ার করে ভারত৷এদিন শতরান হাঁকালেন বিরাট কোহলি৷ প্রথম ইনিংসে অল্প রানে ফিরলেও দ্বিতীয় ইনিংসে ১৩৬ বলে ১০৩ রানের ইনিংস খেললেন ‘ক্যাপ্টেন হট’৷ পাঁচ দিনের ক্রিকেটে সাত ইনিংস পরে রানের ছন্দে ফিরলেন ভারত অধিনায়ক৷

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শেষ টেস্ট সিরিজে চূড়ান্ত ব্যর্থ হন বিরাট৷ পাঁচটি চার ও একটি ছয়ের সাহায্যে ১৭তম টেস্ট সেঞ্চুরি সেড়ে ফেললেন তিনি৷ শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে কেরিয়ারে দ্বিতীয় সেঞ্চুরির পাশাপাশি অধিনায়ক হিসেবে দশম শতরান করে ফেললেন কোহলি৷

৫৫০ রান তাড়া করতে নেমে থরঙ্গা মাত্র দশ রানে শামির বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন৷এরপর আউট হন গুনতিলকা,কুশল মেন্ডিস ও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউজ৷ পঞ্চম উইকেটে কিছুটা হলেও প্রতিরোধ গড়েন করুনারত্নে ও ডিকওয়েল্লা জুটি৷ দু’জনে ১০১ রান যোগ করেন৷ এই জুটিতে ভাঙন ধরান রবিচন্দন অশ্বিন৷

ডিকেওয়াল্লাকে(৬৭) প্যাভিলিয়নে ফেরত পাঠান তিনি৷ করুনারত্নেকে ৯৭ রানে ফেরান অশ্বিনই৷ এই জুটি ভেঙে যেতেই নিশ্চিত হয় ভারতের জয়৷ চোটের জন্য ব্যাট করতে পারেননি হেরাথ,গুনরত্নে৷ অশ্বিন-জাদেজা দুটি করে উইকেট পেয়েছেন৷ ম্যান অফ দ্য ম্যাচ প্রথম ইনিংসে দুরন্ত ১৯০ করা শিখর ধাওয়ান৷

২০১৫ গলে প্রথম টেস্টে হেরে গিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া৷ কিন্তু তারপর অবশ্য ঘুরে দাঁড়িয়ে সিরিজ জয় করেছিল বিরাট অ্যান্ড কোং৷ কিন্তু এবার পরিস্থিতি আলাদা ছিল৷ কোচ বিতর্কে বেশ চাপে আছেন বিরাট কোহলি৷ তার উপর অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকেই টেস্টে রান খরা ছলছিল ক্যাপ্টেন কোহলির৷ অনিল কুম্বলের পদত্যাগের পিছনে সবাই তাঁকেই দায়ী করেছিলেন প্রাক্তনরা৷

তাই সেদিক দিয়ে দেখতে গেলে গলে টেস্ট সেঞ্চুরি কোহলিকে এই চাপ থেকে কিছুটা হলেও স্বস্তি দেবে৷ আর কুম্বলের মতো ব্যাক্তিত্বকে টপকে হেড কোচ হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ায় রবি শাস্ত্রীর উপরও একটা বাড়তি চাপ তো ছিলই৷ তাই সব মিলিয়ে গল টেস্টে জয় বিরাট-শাস্ত্রী জুটিকে বাড়তি অক্সিজেন দেবে তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না৷তিন টেস্টের সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ৩ অগস্ট কলম্বোয়৷