মোবাইলে বিনামূল্যে কথা বলতে পারবেন রোহিঙ্গারা,কিন্তু কিভাবে

প্রকাশকাল- ০৯:৩৬,অক্টোবর ৫, ২০১৭,তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগে

তারানা হালিমকক্সবাজারের ‘রোহিঙ্গা ক্যাম্পে’ আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গারা বিনামূল্যে মোবাইলে কথা বলতে পারবেন। আর এ সুযোগ দিবে টেলিটক। কক্সবাজারের কুতুপালং, বালুখালী, থাইংখালী, হাকিমপাড়া, পালংখালী ও হোয়াইক্যং অস্থায়ী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে টেলিযোগাযোগ সেবা দিতে ১০টি বুথ চালু করেছে টেলিটক।

এ ব্যাপারে ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীই আমাদের নির্দেশনা দিয়েছেন যেন তারা (রোহিঙ্গা) টেলিযোগাযোগ সুবিধাটিও পায়।

আজ বুধবার দুপুরে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে টেলিটকের বুথ উদ্বোধনের সময় প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এসব কথা বলেন।

এক ক্যাম্প থেকে অন্য ক্যাম্পে রোহিঙ্গারা বিনামূল্যে কথা বলার সুযোগ পাবেন। এতে অসহায় রোহিঙ্গারা নিজের স্বজনদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করতে পারবে বলে মনে করেন টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী।

এ ছাড়া রোহিঙ্গা অধ্যুষিত এলাকায় নিরবচ্ছিন্ন ভয়েস সার্ভিস নিশ্চিত করতে টেলিটকের সক্ষমতাও বাড়ানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। তারানা হালিম বলেন, ‘টেলিটকের মোট ১০টি বুথ আমরা বসিয়েছি। সুলভ কলরেট রাখার চেষ্টা করেছি। কিন্তু আজ দেখলাম আসলে তাঁরা কোনো অর্থ দিতে পারছেন না। সে ক্ষেত্রে বলতে পারি, বিনা পয়সাতেই সেবা দেওয়া হচ্ছে।’