রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এবার ইংরেজিতে ধস

প্রকাশকাল- ২০:০২,জুলাই ২৪, ২০১৭,স্বাস্থ্য ও শিক্ষা বিভাগে

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি:
রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডে এইচএসসিতে এবার কমেছে পাসের হার ও জিপিএ-৫। ইংরেজিতে ধস নামার কারণে এবার ফলাফল খারাপ হয়েছে। এইচএসসি পরীক্ষায় এ বছর ২৭ হাজার ৪৬১ জন পরীক্ষার্থী একটি করে বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছেন। সবচেয়ে বেশি ফলাফল খারাপ করেছেন ইংরেজি বিষয়ে। এবার পাসের হার ৭১ দশমিক ৩০ শতাংশ। যা গত বছরের তুলনায় ৪ দশমিক ১ শতাংশ কম। আর জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫ হাজার ২৯৪ জন শিক্ষার্থী। যা গত বছরের চেয়ে ৭৭৯ জন কম শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ পেয়েছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক তরুণ কুমার সরকার। গতকাল রোববার দুপুরে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফল প্রকাশ করেন তিনি। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রণ তরুণ কুমার বলেন, গত বছরের চেয়ে এবার পরীক্ষার্থী বাড়লেও কমেছে পাসের হার ও জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থী। এ বছর ১ লাখ ২৩ হাজার ৬১৬ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিল। আর গত বছর পরীক্ষার্থী ছিল ১ লাখ ৭ হাজার ৯০ জন। এবার পাস করেছে ৭১ দশমিক ৩০ শতাংশ শিক্ষার্থী। সেখানে গত বছর পাসের হার ছিল ৭৫ দশমিক ৪০ শতাংশ। ফলে এবার পাসের হার কমেছে ৪ দশমিক ১ শতাংশ। এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ৫ হাজার ২৯৪ জন শিক্ষার্থী। গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছি ৬ হাজার ৭৩ জন। গত বছরের চেয়ে এবার ৭৭৯ জন শিক্ষার্থী জিপিএ-৫ কম পেয়েছে। তরুণ কুমার সরকার বলেন, এবারে এইচএসসি পরীক্ষায় ইংরেজি বিষয়ে সবচেয়ে বেশি শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছেন। ছাত্রজীবনের শুরু থেকে ইংরেজি ভাষার প্রতি ভয়ের কারণে এ ফলাফল বিপর্যয় হয়েছে বলে মনে করছেন তিনি। তরুণ কুমার বলেন, এইচএসসি পরীক্ষায় এ বছর ২৭ হাজার ৪৬১ জন পরীক্ষার্থী একটি করে বিষয়ে অকৃতকার্য হয়েছে। সবচেয়ে বেশি ফলাফল খারাপ করেছে ইংরেজি বিষয়ে। তবে কতজন ছাত্র শুধু ইংরেজি বিষয়ে ফেল করেছে তাৎক্ষনিকভাবে জানাতে পারেননি তিনি। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আরও বলেন, গতবার এক বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিলো ১৭ হাজার ১১৩ জন। কিন্তু এবারে তা ১০ হাজার বেড়ে হয়েছে ২৭ হাজার ৪৬১ জন। একটি বিষয়ে অকৃতকার্যের হার ২০১৬ সালে ১৪ দশমিক ৭৮ ভাগ ছিলো। এবারে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২২ দশমিক ৫৪ শতাংশে বলে জানান তিনি।