সমাজের বিত্তশালী বিদ্যুৎসাহীদের প্রতি ভূমিমন্ত্রী প্রযুক্তি জ্ঞাননির্ভর জাতি তৈরিতে প্রত্যেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গ্রন্থাগার গড়ে তুলে একটি মাইলফলক রচনা করুন

প্রকাশকাল- ১১:৫৩,অক্টোবর ২০, ২০১৭,রাজশাহী বিভাগ, স্লাইডশো বিভাগে

ঈশ^রদী, পাবনা।

library photo 2ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এম.পি. বলেছেন, একটি দেশের সাহিত্য, শিল্প, সংস্কৃতি, কলা ও প্রযুক্তিনির্ভর জ্ঞান সমৃদ্ধ হয় লাইব্রেরি দ্বারা। তিনি প্রযুক্তিনির্ভর জাতি তৈরিতে দেশের প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গ্রন্থাগার গড়ে তুলে একটি মাইলফলক রচনার জন্য সমাজের বিত্তশালী বিদ্যুৎসাহীদের প্রতি আহ্বান জানান।

আজ সন্ধ্যায় ঈশ^রদী শহরে ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতনে ব্যক্তিগত উদ্যোগে গড়ে তোলা আবদুস সবুর স্মৃতি গ্রন্থাগার এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ এ কথা বলেন।

ভূমি মন্ত্রী শরীফ আরও বলেন, সরকারের নীতিমালা অনুযায়ী যত বই ক্রয় করা দরকার অধিকাংশ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের গ্রন্থাগারগুলোতে বই এর সংখ্যা সে তুলনায় কম রয়েছে। তিনি বলেন, গ্রন্থাগার জ্ঞানের ভান্ডার। গ্রন্থাগার থেকে মানুষ যত জ্ঞান আহরণ করবে জ্ঞানের কোন ঘাটতি হবে না। গ্রন্থাগার থেকে পাঠকরা যে সেবা পেয়ে থাকেন, তা আর কোথাও পাওয়া সম্ভব নয়। মন্ত্রী বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার জাতীয় গ্রন্থাগার, গণগ্রন্থাগার, বিশেষায়িত গ্রন্থাগার ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গ্রন্থাগারগুলোতে সংস্কৃতি এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে পর্যাপ্ত সুযোগ সুবিধা দিচ্ছে। তিনি সংশ্লিষ্টদের সরকারের সকল সুযোগ সুবিধা গ্রহণের জন্য পরামর্শ দেন। এছাড়া মন্ত্রী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠাগারগুলোতে বই এর সংগ্রহ বাড়ানোরও পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু পাড়ায় পাড়ায়, মহল্লায় মহল্লায় গণগ্রন্থাগার গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়েছিলেন। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু একাডেমিক শিক্ষার পাশাপাশি সারাদেশে গণগ্রন্থাগার গড়ে তুলে একটি শিক্ষিত জাতি গড়ে তুলতে চেয়েছিলেন। মন্ত্রী বলেন, গণগ্রন্থাগার ব্যবহারে শিশু, কিশোর, যুবক, তরুণ, বৃদ্ধ সবার সমান সুযোগ থাকে। তিনি সমাজের বিত্তশালী বিদ্যুৎসাহীদের প্রত্যেক এলাকার বিদ্যালয়ে একটি করে লাইব্রেরি প্রতিষ্ঠা করে রেনেসাঁ যুগের মতো একটি মাইলফলক রচনার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। গ্রন্থাগারটিতে পাঠকের জন্য ৩ হাজার বই রয়েছে। এছাড়া গ্রন্থাগারটিতে ১১টি কম্পিউটার ও ২টি ল্যাপটপ ও এনসাইক্লোপিডিয়াভিত্তিক ডিকশনারী, দেশের স্বাধীনতার ইতিহাসসমৃদ্ধ রেফারেন্স বই, পাঠ্যপুস্তক ও জ্ঞানভিত্তিক জীবনী ও রচনামূলক বই রয়েছে। আবদুস সবুর স্মৃতি গ্রন্থাগারটি ব্যক্তিগত উদ্যোগে গড়ে তুলেন জালাল উদ্দীন তুহিন। মন্ত্রী ভাষা শহীদ বিদ্যানিকেতনের আবদুস সবুর স্মৃতি গ্রন্থাগারের বই সংগ্রহ বাড়াতে মন্ত্রীর ব্যক্তিগত অর্থবরাদ্ধ থেকে নগদ ১ লাখ টাকা প্রদানের ঘোষণা করেন। এর আগে মন্ত্রী আবদুস সবুর স্মৃতি গ্রন্থাগার ঘুরে দেখেন এবং গ্রন্থাগারের পরিদর্শন বই-এ স্বাক্ষর করেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে ঈশ^রদী উপজেলা চেয়ারম্যান মকলেছুর রহমান মিন্টু, পাবনা-৪ আসনের সাবেক এম.পি. মঞ্জুরুর রহমান বিশ^াস, ভাষা শহীদ বিদ্যা নিকেতনের সভাপতি মাহজেবিন শিরিন পিয়া, সলিমপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবদুল মজিদ (বাবলু মালিথা), প্রধান শিক্ষক মোক্তার হোসেন, কফি বারী, সাংবাদিক কিরণ, অধ্যাপক হাশেম, মহিদুল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।