সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগে সার্জেন্ট প্রত্যাহার

প্রকাশকাল- ১০:৪১,অক্টোবর ১২, ২০১৭,সারাবাংলা বিভাগে

policeরাজধানীর মৎস ভবনের সামনে মানবজমিন পত্রিকার এক ফটো সাংবাদিককে মারধর করার অভিযোগে মুস্তাইন নামের এক ট্রাফিক সার্জেন্টকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। ওই ফটো সাংবাদিকের নাম নাসির উদ্দিন। বুধবার বিকেল ৪টায় মৎস ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

মারধরের বিষয়ে ফটো সাংবাদিক নাসির উদ্দিন জানান, প্রেসক্লাব থেকে অফিসে যাওয়ার পথিমধ্যে মৎস ভবনের সামনে সিগন্যাল দেন সার্জেন্ট মুস্তাইন। পরে তিনি গাড়ীর কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখতে চান।পরে তাকে গাড়ীর কাগজপত্র ও ড্রাইভিং লাইসেন্স দেখাই।এদিকে আমার মাথায় হেলমেট না থাকার কারণে তিনি মামলা দিতে চান। আমি তাকে অনুরোধ করে জানাই, ৩/৪ দিন আগে আমার বাইক থেকে হেলমেট চুরি হয়ে গেছে। ২/১ দিনের মধ্যে আমি আরেকটা কিনে নিব। তাছাড়াও আপনাদের অনেকেই আমার পরিচিত। আর আমি প্রতিনিয়ত এই পথ দিয়েই চলাচল করি। প্লিজ মামলাটা দিয়েন না, এটা ঠিক হবে না।

এ কথা বলতেই, সার্জেন্ট মুস্তাইন ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে বলে, ঠিক বেঠিক তোরে জিগাইতে হইব না। আর গালাগালি করতে থাকে। পরে ক্যামেরা বের করতেই সার্জেন্ট গলায় ও বুকে ধরে মারধর করে ক্যামেরা ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক – দক্ষিণ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) রিফাত রহমান শামীম  জানান, মারধরের ঘটনাটি আমি শুনেছি। এ ঘটনায় ওই সার্জেন্টকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ বিষয়ে ডিএমপি’র নিউজ পোর্টালে নিউজও করা হয়েছে।

সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় দুই সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তের পর তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।