সাকিব আর সৌম্যের কারণে হিসেব এলোমেলো মুশফিকের

প্রকাশকাল- ০৯:০৩,সেপ্টেম্বর ২৮, ২০১৭,খেলা বিভাগে

sakib-syoma.ঢাকা : সাকিব খেললে আমরা একজন বাড়তি ব্যাটসম্যান খেলাতে পারি। প্রায় সময়ই এ কথা বলে থাকেন বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচে নামার আগে বুধবার আরও একবার বললেন এ কথা। সাকিব আল হাসান এবার দলে না থাকায় বদলে যাবে কম্বিনেশন। তবে এবার আরও একটু ঝামেলায় পড়েছেন অধিনায়ক। এখনও শতভাগ ফিট হতে পারেননি সৌম্য সরকার। তার জন্য শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করে হয়তো আরও বদলে যেতে পারে দলের কম্বিনেশন। তবে একাদশ গড়তে বড় চ্যালেঞ্জের মুখে পড়ছেন তা বারবারই বললেন অধিনায়ক।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ থেকে বিশ্রাম নিয়েছেন সাকিব। তাই তাকে ছাড়া একাদশ গড়তে বেশ হিমশিম খেতে হচ্ছে মুশফিককে আমরা সেরা কম্বিনেশন চেষ্টা করি, প্রতিপক্ষ বিবেচনায় রেখে, কন্ডিশন মাথায় রেখে। সাকিব যেহেতু নাই এখন দুই জন খেলোয়াড় খেলাতে হবে। আমরা একজন ব্যাটসম্যান খেলাতে পারি। একজন পেসার বা একজন বাড়তি স্পিনার খেলাতে পারি। সব দিকই বিবেচনা করা হচ্ছে। সৌম্যর ইনজুরিও ভাবাচ্ছে অধিনায়ককে, Ôআর সৌম্য যদি ফিট থাকে তাহলে ভিন্ন একটা কম্বিনেশন আপনারা দেখতে পারেন।Õ

দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেট বরাবরই বাউন্সি হয়। তাই স্বাভাবিকভাবে সেখানে পেসাররা দাপট দেখান। তাই দলের বাড়তি থাকবে বলেই ইঙ্গিত দেন মুশফিক, Ôযেমন কন্ডিশন ও উইকেট তাতে তিনজন পেসার তো খেলতেই পারে।Õ আর এটাকে পেসারদের জন্য বড় সুযোগও মনে করছেন অধিনায়ক, Ôএটা আপনার দেশের মতো না যে, স্পিনাররা একটা বড় ভূমিকা রাখবে, আক্রমণাত্মক ভূমিকা পালন করবে। এখানে পেস বোলারদের একটা বড় ভূমিকা রাখতে হবে। আপনি দেখবেন, দেশের বাইরে ওরাই বেশি ভালো করে। এটা ওদের জন্য অনেক বড় একটা সুযোগ।Õ

প্রতিপক্ষ দারুণ শক্তিশালী হলেও জয়ের ব্যপারে আশাবাদী মুশফিক। দলের খেলোয়াড়রা সেরাটা খেলতে পারলে জয় অসম্ভব কিছু নয় বলেও জানান তিনি, Ôদক্ষিণ আফ্রিকা গত ৮/১০ বছর ধরে টেস্টের এক নম্বর দল। তবে আমরা গত দুই বছর ধরে যেভাবে খেলছি তাতে আমরা আশাবাদী। ধারাবাহিকতা যদি ধরে রাখতে পারে তাহলে আশা করি, এই টেস্টেও খুব ভালো একটা ফল আসবে আমাদের পক্ষে।Õ তবে পেসারদের থেকে বাড়তি কিছু আশা করছেন অধিনায়ক, Ôসবেচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো আমাদের পেসাররা যদি সঠিক লাইন লেংথে টানা বল করে নিয়মিত সুযোগ তৈরি করতে পারে তাহলে খুব ভালো হবে।