সিলেটে শিবিরের হামলার প্রতিবাদে ময়মনসিংহে ছাত্রলীগের মানব্বন্ধন

প্রকাশকাল- ২২:৪৩,আগস্ট ৮, ২০১৭,ময়মনসিং বিভাগ বিভাগে

bnএইচ এম মোমিন তালুকদার, ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
সিলেট নগরীর সোবহানীঘাট জালালাবাদ কলেজের সামনে সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগের ২ কর্মী আহতের ঘটনায় মানব্বন্ধন করেছে ময়মনসিংহ জেলা ও এম কলেজ ছাত্রলীগ শাখা।

মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) সকাল ১১ টার দিকে ময়মনসিংহ আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সামনে তারা ঘন্টাব্যাপী মনব্বন্ধন কর্মসূচী পালন করেন।

মনব্বন্ধনে বক্তারা দাবি করেন, শিবির ক্যাডাররা দিনে দুপুরে ছাত্রলীগের নিরীহ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এমন বর্বরোচিত ঘটনা তাদের নৃশংসতার প্রমাণ দিয়েছে। শিবির এ হামলার ঘটনা ঘটিয়েছে। এ সময় বক্তারা অবিলম্বে হামলার ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানান।

ময়মনসিংহ আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মাহমুদুল হাসান সবুজের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রকিবুল ইসলাম রকিব, শেখ সজল, সুমন, নাফ, নারী নেত্রী তাহমিনা সিদ্দিকি জুঁই, উম্মে সামিনা প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে রকিব বলেন, জালালাবাদ কলেজের সামনে শিবিরের সন্ত্রাসী হামলায় ছাত্রলীগের দুই ভাই “শাহীন ও আসিফ” এর ওপর বর্বরোচিত হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে বলতে চায়, আর নয় প্রতিরোধ এখন শুধুই প্রতিশোধ নিতে হবে। ওরা আমার স্বাধীনতার চেতনা গিলে খেতে চায়। এমনটি আর হতে দেয়া যাবেনা। আগষ্ট ওদেরই ষড়যন্ত্রর মাস নয়, আগষ্ট এখন থেকে ওদের ধ্বংসের মাস বলে ঘোষনা দিলাম। মুজিব সন্তানেরা সবাই সোচ্চার হও।

উলে¬খ্য, সোমবার (৭ আগস্ট) বেলা ১টার দিকে জালালাবাদ কলেজের সামনে ছাত্রলীগের ২ কর্মীকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে সন্ত্রাসীরা। তারা হচ্ছেন- মদন মোহন কলেজের ছাত্রলীগ কর্মী শাহিন আহমদ (২২) ও জালালাবাদ কলেজের ছাত্রলীগকর্মী আবুল কালাম আসিফ (১৮) । এ ঘটনায় ছাত্রশিবিরকে দায়ী করেছে ছাত্রলীগ। আহতদের মধ্যে শাহীনের শরীরের ৮০ ভাগ অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বেলা ১টার দিকে ২ টি মোটর সাইকেলে এসে হেলমেট পরিহিত ৪ যুবক ছাত্রলীগের ওই ২ কর্মীর ওপর প্রকাশ্যে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হামলা চালায়। তারা কুপিয়ে শাহীনের শরীর থেকে তার ডান হাত বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এছাড়া, তার বাম হাতের একাধিক স্থান ও ২পায়ের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এছাড়া, ছাত্রলীগ কর্মী আশিকের ডান পায়ের গোড়ালিসহ হাত ও পায়ের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে। আহত দু’জনই মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি রাহাত তরফদার গ্রুপের কর্মী।